ঢাকারবিবার , ৩১ মার্চ ২০২৪
  1. অর্থনীতি
  2. আইন-আদালত
  3. আন্তর্জাতিক
  4. কৃষি ও অন্যান্য
  5. খেলাধুলা
  6. গল্প ও কবিতা
  7. জাতীয়
  8. তথ্যপ্রযুক্তি
  9. দেশজুড়ে
  10. ধর্ম ও জীবন
  11. প্রবাস
  12. বানিজ্য
  13. বিনোদন
  14. বিশেষ প্রতিবেদন
  15. মুক্তমত
আজকের সর্বশেষ সবখবর

দ্বিতীয় দিন শেষেও চালকের আসনে শ্রীলঙ্কা

স্পোর্টস ডেস্ক
মার্চ ৩১, ২০২৪ ৯:০৮ অপরাহ্ণ
Link Copied!

স্বস্তি নিয়ে দ্বিতীয় দিনটা শেষ করা হলো না বাংলাদেশের। খুব কাছে গিয়েও বিপদ ছাড়া পাড়ি দেয়া গেল না শেষ বিকেল। শেষ মুহূর্তে মাহমুদুল হাসান জয়কে তুলে নিয়েছেন লাহিরু কুমারা। তাতেই যেন বেজে উঠলো বিপদের ঘনঘটা।
চট্টগ্রাম টেস্টের দ্বিতীয় দিনও দখলে ছিল শ্রীলঙ্কার। প্রথম দিনের পর রোববারেও অধিকাংশ সময় ব্যাট করেছে তারা। রোববার অলআউট হবার আগে ১৫৯ ওভার ব্যাট করে ৫৩১ রানে থামে লঙ্কানদের ইনিংস। কোনো শতক না থাকলেও ছিল ৬টি ফিফটি।
জবাব দিতে নেমে জয় আর জাকিরের ব্যাটে ভালো শুরু পায় বাংলাদেশ। একটা সময় মনে হচ্ছিলো হয়তো নিরাপদেই শেষ করা যাবে দিন। তবে শেষ পর্যন্ত তা আর হয়নি, ১ উইকেট হারিয়ে ১৫ ওভারে ৫৫ রান করেছে বাংলাদেশ। এখনো পিছিয়ে আছে ৪৭৬ রানে।
আউট হবার আগে জয় করেন ২১ রান। তাতে ১২.৩ ওভারে ভাঙে ৪৭ রানের উদ্বোধনী জুটি। জাকির অপরাজিত আছেন ৩৯ বলে ২৮ রানে। সাথে তাইজুল মাঠে আছেন ৯ বলে ০ রানে।
এর আগে ৫ উইকেটে ৩১৪ রান নিয়ে রোববার দ্বিতীয় দিনের মতো মাঠে নামে শ্রীলঙ্কা। অধিনায়ক ধনঞ্জয়া ডি সিলভা ও দিনেশ চান্দিমাল মিলে নতুন দিনে যোগ করেন আরো ৬১ রান। দু’জনের ৮৬ রানের জুটি ভাঙেন সাকিব। এনে দেন দলকে প্রথম উপলক্ষ।
দীনেশ চান্দিমালকে ফেরান বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডার। ১০৫.২ ওভারে ১০৪ বলে ৫৯ রান করা চান্দিমালকে লিটন দাসের ক্যাচ বানান সাকিব। এই সেশনে আর কোনো উইকেটের দেখা পায়নি বাংলাদেশ।
তবে মধ্যাহ্নভোজ থেকে ফিরেই ফের উইকেটের দেখা পায় বাংলাদেশ। খালেদ আহমেদ লঙ্কানদের ষষ্ঠ উইকেট তুলে নিয়েছে টাইগাররা। ফেরান ধনঞ্জয়া ডি সিলভাকে। ১১১ বলে ৭০ করে এলবিডব্লুর ফাঁদে পড়েন লঙ্কান অধিনায়ক।
এরপর কামিন্দু মেন্ডিসকে নিয়ে ১৪০ বল থেকে ৬৫ রান যোগ করেন প্রতাভ জায়সুরিয়া। এই জুটি ভেঙে দলকে আরো একবার উদযাপনের উপলক্ষ এনে দিয়ে দ্বিতীয় দিন শেষ করেন সাকিব। প্রতাভ আউট হন ২৫ রানে।
এরপর মেহেদী মিরাজ লাহিরু কুমারাকে ফিরিয়ে প্রথম উইকেটের দেখা পান। বাকি দু’জনে হন রান আউট। তবে একপ্রান্ত আগলে রেখে দারুণ খেলতে থাকা কামিন্দুর ফুরোয়নি শতকের অপেক্ষা। ১৬৭ বলে ৯২ রান করে অপরাজিত ছিলেন তিনি।

%d bloggers like this: